Advertising
hemel
Advertising
hemel

মুস্তাফিজ-মুশফিকের ঘাম ঝরানো অনুশীলন

ফিটনেস নিয়ে সকালে কাজ করেছেন ট্রেনার মারিও বিল্লাভারায়েন। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ইনডোরে বিকেলটা ছিল প্রধান কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহের। ১৬ সদস্যের টেস্ট দলের ১৩ জনকে নিয়ে নেমেছিলেন অনুশীলনে। শ্রীলঙ্কার উইকেটের সঙ্গে মিল রেখে ইনডোরেই বানিয়েছেন ‘স্লো অ্যান্ড লো’ উইকেট। তার উপর চলেছে মুস্তাফিজুর রহমান-মুশফিকুর রহিমদের ঘাম ঝরানো অনুশীলন। শ্রীলঙ্কা সফরে শুরুতে দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ দল।

এরপর তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি খেলবে মাশরাফি-মুশফিকরা। সফরে যাওয়ার আগে মাত্র তিনদিনের অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। যা শুরু হয়েছে শুক্রবার থেকে। সকালে ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছেন লঙ্কান ট্রেনার মারিও বিল্লাভারায়েন। বিকেলে টানা অনুশীলনে ক্রিকেটারদের নিয়ে ব্যস্ত থেকেছেন হাতুরুসিংহে।

লঙ্কা সফরে ভাবনার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে উইকেট। দল ঘোষণার দিনই প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু সেটা মনে করিয়ে দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, ‘শ্রীলঙ্কার গলে ঘাসের উইকেট থাকতে পারে। ওরা স্পোর্টিং ট্র্যাক দিলে হয়তো তিনটা সিমার নিয়ে খেলতে হতে পারে। এখান থেকে বসে বলা সম্ভব নয়, আমরা কোন ধরনের উইকেট পাচ্ছি। পিসারাতে আমরা সব সময়ই জানি টার্নিং উইকেট হয়। সেই হিসেবে গলেরটা কিন্তু ভিন্ন হবে। ওদের নিজস্ব একটা প্লান থাকে।’

এর সবকিছুই মাথায় রেখেছেন কোচ। সেভাবেই রণকৌশল সাজিয়েছেন। লঙ্কান কোচ নিজের দেশের উইকেট সম্পর্কে ভালই জানেন। গতানুগতিক ‘লঙ্কান’ উইকেটের সঙ্গে মিল রেখে তার পরামর্শেই ইনডোরে তৈরি হল ‘স্লো অ্যান্ড লো’ উইকেট। এই উইকেটে চার পেসারকে দিয়ে টানা বল করিয়েছেন তিনি।

ছিলেন রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান ও শুভাশীষ রায়। পুরো সময়টা ধরে স্বাভাবিক রিদমে বল করেছেন ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজুর রহমান। তবে এদিন বল হাতে নেননি কামরুল ইসলাম রাব্বি। নিজের অনুশীলনের পুরোটা সময় ধরে ব্যাট হাতে অনুশীলন করেছেন। নিউজিল্যান্ড ও ভারতের বিপক্ষে রাব্বির ব্যাটিং পারফরম্যান্স দেখার পর তার ব্যাটিং নিয়ে কাজ করছেন হাতুরুসিংহে।

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে অধিনায়ক মুশফুফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত এবং মুমিনুল হক নিজেদের ব্যাটিং নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন। আর দুই স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল বোলিং করার পর ব্যাটিং অনুশীলনে নজর দিয়েছেন। পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে ২৭ ফেব্রুয়ারি শ্রীলঙ্কার উদ্দেশে দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ দল। গলে প্রথম টেস্ট শুরু হবে সাত মার্চ।

Related posts