Advertising
Advertising

আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বিএনপি : ওবায়দুল কদের

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মো. হারনুর রশিদসহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি তাদের ভুল রাজনীতির কারণে আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে হতাশায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

তিনি বলেন, আমি তো এর আগেও বলেছি, আন্দোলনে ও নির্বাচনে ভুল করে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি হতাশায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। বেপরোয়া চালকের মতো বিএনপি এখন বেপরোয়া দল।’ তিনি বলেন, ‘বেপরোয়া চালক যেমন দুর্ঘটনার কারণ, আমি জানিনা, বিএনপি আবার কখন কোন দুর্ঘটনা রাজনীতিতে ঘটিয়ে বসে।’

রাজধানীর কাকরাইলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শুক্রবার সকালে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ এবং রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার রাজনৈতিক দর্শন ভিত্তিক গ্রন্থের লাইব্রেরী যুবজাগরণ কাকরাইল শাখার উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

আওয়ামী যুবলীগ সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী প্রতিষ্ঠিত যুবলীগের গবেষণা কেন্দ্র হতে প্রকাশিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ এবং রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার রাজনৈতিক দর্শন ভিত্তিক গ্রন্থের লাইব্রেরি ‘যুবজাগরণ’র উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কদের।

নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার আওয়ামী লীগের লোক, বিএনপির এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি ছাড়া আর কেউ কি এটা মনে করেছে? আসলে বিএনপি কখন কি বলে তা নিজেরাও জানে না। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক যুবলীগের লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠার উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, অশিক্ষিত-অর্ধশিক্ষিতদের দিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে ভরে গেছে। রাজনীতিতে পড়াশুনার কোনো বিকল্প নেই।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, যারা রাজনীতি করবে, তাদেরকে পড়াশনা করতে হবে, যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। অন্যথায় নেতাদের স্বার্থের পাহারাদার হতে হবে। নেতাদের স্বার্থের সংরক্ষক হতে হবে। ওবায়দুল কাদের বলেন, শুক্র-শনিবার ছাড়া রাজধানীতে কোনো র‌্যালি-সমাবেশ করা যাবে না। আগামী মার্চ মাসে ৭ মার্চ ও ২৬ মার্চসহ তিনটি বড় কর্মসূচি রয়েছে।

তিনি বলেন, এসব দিনে আমরা জনসভার কর্মসূচি বাদ দিয়ে ঘরোয়া অনুষ্ঠান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এটা আমরা করেছি জনগণের স্বার্থে। কারণ আমরা রাজনীতি করি জনস্বার্থে। জনগণ বিরক্ত হয় এমন কর্মসূচি থেকে আমরা বিরত থাকব।

Related posts