Advertising
Advertising

প্রেসক্রিপশন যেনো পড়া যায়: হাইকোর্ট

প্রেসক্রিপশন যেনো পড়া যায়: হাইকোর্ট

ডাক্তারদের প্রেসক্রিপশন (ব্যবস্থাপত্র) পড়ার উপযোগী করে লেখার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে চার সপ্তাহের মধ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে সার্কুলার জারির জন্য রুল দেয়া হয়েছে। সোমবার বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরশেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেসুর রহমান।

স্বাস্থ্যসচিব, বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিলের রেজিস্ট্রার, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সেক্রেটারিসহ বিবাদীদের চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। গেলো বছরের ১৭ ডিসেম্বর একটি জাতীয় দৈনিকে ‘ভুল ওষুধ গ্রহণের ঝুঁকিতে রোগীরা’ শিরোনামে প্রতিবেদন ছাপা হয়। 

পরে এ বিষয়ে নির্দেশনা চেয়ে ২ জানুয়ারি মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে দু’ আইনজীবী রিট করেন। রিট আবেদনকারীরা জানান, প্রেসক্রিপশনে অস্পষ্ট লেখার কারণে বেশ জটিলতা তৈরি হয়। অনেক সময় রোগী ও ফার্মেসির বিক্রেতারাও বুঝেন না। ফলে  ভুল ওষুধ দেয়া হয়। এতে রোগীরা মৃত্যুঝুঁকিতে পড়েন।

Related posts