Advertising
Advertising

এই শীতে গরম গরম ভাপা পিঠা

ভাপা পিঠা হলো বাংলাদেশের একটি ঐতিহ্যবাহী পিঠার মধ্যে একটি। আর আমরা বাঙ্গালিরা ভাপা পিঠা ছাড়া শীতকাল কল্পনাই করতে পারিনা! সুস্বাদু এই ভাপা পিঠা চালের গুঁড়ো এবং গুড় দিয়ে তৈরী করা হয়। আবার অনেকেই স্বাদ বৃদ্ধির জন্য নারকেলের শাঁস দিয়ে থাকে। শীতের সকালে গরম গরম ভাপা পিঠা হলে তো আর কথাই নেই। আর শীতকাল মানেই শহর জুড়ে দেখা যায় ভাপা পিঠার আয়োজন। কিন্তু, আমরা অনেকেই রাস্তায় বানানো খাবার খেতে চাইনা, অনেকে রয়েছেন যারা বাচ্চার জন্য সব খাবারই বাসায় বানান। তাই আজ শেয়ার করছি আপনাদের সঙ্গে এই মজাদার এবং সুস্বাদু ভাপা পিঠার রেসিপি –

উপকরণঃ ২কাপ চালের গুঁড়ো, ১ কাপ খেজুর গুঁড়ো, ১ কাপ নারিকেল গুড়ো, স্বাদ মতো লবন, পিঠা বানানোর বাঁটি, একটি পাতিল এবং একটি ছিদ্রযুক্ত ঢাকুনি।

প্রণালিঃ প্রথমে চালের গুঁড়োর সঙ্গে পানি ছিটিয়ে, লবণ দিয়ে হালকা ভাবে মেখে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন দলা না বাঁধে। তারপর এখন হাঁড়িতে পানি দিন, হাঁড়ি উপর ছিদ্রযুক্ত ঢাকুনিটি রেখে চুলায় বসিয়ে দিন, আর চুলাটি খুব অল্প আচে রাখুন, ঢাকুনির পাশে ছিদ্র থাকলে তা আটা বা মাটি দিয়ে বন্ধ করে দিতে হবে। ছোট বাটিতে মাখানো চালের গুঁড়ো নিয়ে তার মাঝখানে পরিমাণ মত গুড় দিতে হবে। তারপর ওপরে অল্প চালের গুঁড়ো দিয়ে পাতলা কাপড়ে দিয়ে বাটির মুখ ঢেকে ছিদ্রযুক্ত ঢাকুনির ওপর বাটি উল্টে তা সরিয়ে নিতে হবে। ২ থেকে ৩ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। তারপর পিঠাটিতে নারিকেলের গুঁড়ো ছড়িয়ে দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

Related posts