Advertising
hemel
Advertising
hemel

নাফিস এবং মালানের হাফসেঞ্চুরিতে বরিশালের বড় জয়

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএলে) এবারের আসরে তৃতীয় জয় তুলে নিল বরিশাল বুলস। চিটাগং ভাইকিংসের ছুঁড়ে দেওয়া ১৬৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শাহরিয়ার নাফিস  এবং ডেভিড মালানের ঝড়ো হাফসেঞ্চুরিতে দুই বল বাকি থাকতেই ৭ উইকেট হাতে রেখে বড় জয় তুলে নিল বরিশাল বুলস। সোমবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে ১৬৪ রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই জশুয়া কবকে হারায় বরিশাল বুলস।

এরপর দলের হাল ধরেন শাহরিয়ার নাফিস  এবং ডেভিড মালান। চার-ছক্কার ফুলঝুরিতে এই জুটিতেই জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে যায় বরিশাল বুলস। চলতি আসরের শুরু থেকেই ব্যাট হাসছে শাহরিয়ার নাফিসের। সোমবার আরও একবার হাসলো জাতীয় দলের এক সময়ের নিয়মিত মুখ নাফিসের ব্যাট। ৪৫ বলেই তুলে নেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ হাফসেঞ্চুরি। এই আসরে এটা নাফিসের তৃতীয় এবং টানা দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি।

আগের ম্যাচে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষেও দেখা পেয়েছিলেন হাফসেঞ্চুরির। শেষ পর্যন্ত ব্যক্তিগত ৬৫ রানে সাজঘরে ফেরেন শাহরিয়া নাফিস। সেই সাথে ভাঙ্গে মালানের সাথে গড়া দ্বিতীয় উইকেটে বিপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ১৫০ রানের জুটি। শাহরিয়া নাফিস ফিরে যাওয়ার পরের বলে সাজঘরে ফেরেন শ্রীলঙ্কার অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরাও। দুটি উইকেটই নেন ইমরান খান।

তবে অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম, ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান মালানকে সাথে নিয়ে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন। মুশফিকুর রহিম অপরাজিত থাকেন দুই চারের সাহায্যে দশ রানে। আর মাত্র ৩৪ বলেই হাফসেঞ্চুরি করা মালান শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ৭৮ রানে। তার ইনিংসে ছিল তিনটি চার সাতটি ছক্কার মার।চিটাগংয়ের হয়ে ইমরান খান দুটি  এবং শুভাশিষ রয় একটি উইকেট নেন।

Related posts