Advertising
hemel
Advertising
hemel

অভিষিক্ত ক্রিকেটার হিসেবে ৫ উইকেট শিকার করছেন মিরাজ

‘অনেক ভালো লাগছে। এ দিনটার কথা আমার সারাজীবন মনে থাকবে। এ ম্যাচটির কথা আজীবন মনে থাকবে। আমার অভিষেক ম্যাচ। আমি পাঁচ উইকেট পেয়েছি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ উইকেট পাওয়া সত্যিই ভাগ্যের বিষয়।’-বৃহস্পতিবার বিকেলে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের সংবাদ সম্মেলনে কক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের প্রথম দিনের অভিজ্ঞতা বলছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

খুলনার ১৮ বছর বয়সি এ ক্রিকেটার এখন টক অব দ্যা টাউন। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের ৮০তম টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে মিরাজের অভিষেক হয়েছে। অভিষেকেই মিরাজ গড়েছেন রেকর্ড। বাংলাদেশের সবচেয়ে কম বয়সে অভিষিক্ত ক্রিকেটার হিসেবে ৫ উইকেট নিয়েছেন মিরাজ। ১৮ বছর ৩৬১ দিনে মিরাজ পেলেন ৫ উইকেট। ২১ বছর ১০০ দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন সোহাগ গাজী।

কিন্তু স্বপ্নের অভিষেক যে এমন হবে তা কল্পনাও করেননি মিরাজ। মিরাজ বলেছেন,‘আমি আসলে এতটা ভাবিনি যে আমি পাঁচ উইকেট পাব। অনেক ভালো হতেই হবে, এরকম কখনো ভাবিনি। তবে চেষ্টা করেছি যে দলকে কিছু একটা পারফর্ম করে দিব। আমি কখনোই চিন্তা করিনি যে পাঁচ/ছয় উইকেট পাব কিংবা ডোমিনেট করব।’

তাহলে চিন্তায় কি ছিল? উত্তরে মিরাজ,‘আল্লাহর অশেষ রহমতে ভালো হয়ে গেছে। আমি কখনোই চিন্তা করিনি যে আমি পাঁচ উইকেট পাব। আমি ‘অ্যাভারেজ’ পারফরম্যান্স আশা করেছিলাম। বোলিংয়ে একটা-দুটা উইকেট; ব্যাটিংয়ে ৩০ রান। যখন বেশি ভালো হয় তখন প্রত্যাশার বাইরে অনেক কিছু হয়ে যায়। ইংল্যান্ড আসলে বড় টেস্ট টিম এবং ভালো টিম। বিশ্বের সেরা একটা-দুটো টিমে ওদের ধরা হয়।’

বড় ক্রিকেটারের শুরুটা সব সময় স্মরণীয় হয়নি। আজ মিরাজেরটা হল। নিশ্চিতভাবেই বলা যায় ধুমকেতু হয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটে আসা মিরাজ একদিন ধ্রুবতারার জায়গাটি দখল করে নিবে।’

Related posts