Advertising
Advertising

বৃষ্টি থেমে গেছে, চলছে মাঠ শুকানোর ব্যাপক তোড়জোড়

চট্টগ্রামে টানা তিনদিন ধরে বৃষ্টির তোপ। বুধবারও দিনভর ভারি বৃষ্টি হবার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। বৃষ্টির জন্য জহুর আহম্মেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের উইকেট ছিল ঢাকা। আউটফিল্ডও ছিল ভেজা কিন্তু এখন ক্রিকেটপ্রেমীদের জন্য সুখবর। বৃষ্টি থেমে গেছে চট্টগ্রামে।

এই মুহূর্তে চলছে মাঠের পরিচর্যা কাজ। দুপুর একটায় দুই আম্পায়ার পিচ পরিদর্শন করে যথাসময়ে খেলা শুরুর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহন করবেন। খেলা শুরুর নির্ধারিত সময় দুপুর ২.৩০ মিনিট। দেরিতে খেলা শুরু হলে কার্টেল ওভারে খেলা হবে। ম্যাচটির জন্য কোনো রিজার্ভ ডে নেই, তাই শেষ পর্যন্ত ম্যাচ না হলে ট্রফি ভাগাভাগি করে নেবে দুদল।

গ্রাউন্ডসম্যানরা জানিয়েছেন, মাঠে যদি পানিও থাকে সেটা সরিয়ে মাঠ পুরোপুরি খেলার উপযোগী করতে সময় লাগবে দেড় থেকে দুই ঘন্টার মত। এখন বৃষ্টি আর না হলে খেলা হয়তো মাঠে গড়াবে। এদিকে মঙ্গলবার সকাল ছয়টা থেকে বুধবার সকাল ছয়টা-এই ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে ৪২ মিলিমিটার। বুধবার সকাল ছয়টা থেকে নয়টা পর্যন্ত ঝরেছে আরও ১৪ মিলিমিটার। অর্থাৎ গত ২৭ ঘণ্টায় ৫৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। আজ বুধবারও দিনভর ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে।

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে দুই দলের জয় সমান হওয়ায় তৃতীয় ম্যাচেই নির্ধারণ হবে, কাপটা কি মাশরাফির হাতে উঠবে, না বাটলারের! তবে বৃষ্টি হয়তো চাচ্ছে কাপটা দু’দলের অধিনায়কের হাতেই উঠুক। আবহাওয়ার পূর্বাভাসের ব্যাপারে জানতে চাইলে পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের দায়িত্বরত কর্মকর্তা মেঘনাথ তঙচঙ্গা জানান, গত ২৭ ঘণ্টায় মোট ৫৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। বুধবার দিনভরও ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবণা রয়েছে। পাশাপাশি কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনাও রয়েছে।

Related posts