Advertising
hemel
Advertising
hemel

বোরকা পরে মুসলিম মেয়েদের শ্লীলতাহানি, হিন্দু নেতাকে গণধোলাই

বোরখা পরিহিত অবস্থায় মুসলমান নারীদের শ্লীলতাহানির অভিযোগে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (VHP)-এর এক নেতাকে গ্রেফতার করেছে ভারতীয় পুলিশ। গত শনিবার রাতে এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের মনিউমরপুরে। আটকের নাম অভিষেক যাদব। তিনি VHP জেলা সভাপতি বলে জানা যায়।

তার স্ত্রী বিজেপি দলের পঞ্চায়েত সদস্য। ভারতীয় গণমাধ্যম ইনাডু ইন্ডিয়ার সংবাদে বলা হয়, শনিবার রাতে ঐ এলাকায় মহরম উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠান চলছিল। উপস্থিত ছিলেন নারীরা। সেখানেই অভিষেক এবং তার এক বন্ধু বোরখা পরিহিত অবস্থায় চলে যান।

অভিযোগ, তারা কয়েকজন মহিলার শ্লীলতাহানিরও চেষ্টা করেন। তারপরই দুই যুবককে ধরে বেধড়ক মারধর করেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত মহিলারা। এরপর অভিষেককে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। অপরদিকে, অভিষেকের সাথে থাকা অন্য আর এক যুবক ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যান।

অন্য একটি সূত্রে প্রকাশ পেয়েছে, মহিলাদের বিরোধিতার মুখে ঘটনাস্থল থেকে পালাতে গেলে তার জুতো এবং জিন্স দেখে লোকজনের সন্দেহ হয়। লোকেরা তখন তাকে তাড়িয়ে ধরে ফেলে এবং বোরকা খুলে ফেলে। এরপরেই শুরু হয় গণধোলাই।

স্থানীয়রা জানায়, গোলযোগ সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যে ঐ ব্যক্তি গোপনভাবে মহিলাদের মধ্যে বসে ছিল। যদিও সন্দেহজনভাবে ছদ্মবেশে ঠিক কী উদ্দেশে উগ্রহিন্দুত্ববাদী ঐ নেতা মহররমের মতো ধর্মীয় অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন সেটা এখনো স্পষ্ট হয়নি। রবিবার অভিষেক ও তার এক সঙ্গীর বিরদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। দাঙ্গা এবং সাম্প্রদায়িক উসকানিতে জড়িত থাকার অভিযোগে তিনি এর আগে কারাগারেও গিয়েছেন।

Related posts