Advertising
Advertising

হাতুরুসিংহের স্বাধীনতায় বদলে গেছেন মাশরাফি বাহিনীরা

থিলান সামারাবীরা এবং চান্দিকা হাতুরুসিংহের সম্পর্কটা একদিক থেকে যেমন পেশাগত অন্যদিক থেকে তারা দুজনেই  স্বদেশী। তাই নিজেদের মধ্যে টানটাও অনেক বেশি। এখনও বাংলাদেশ দলের সঙ্গে তেমন পরিচিত হয়ে উঠতে পারেননি বাংলাদেশের নতুন ব্যাটিং কোচ সামারাবীরা তবে গেল দুই বছর থেকে মাশরাফি, সাকিব, তামিম, মুশফিকদের হেড স্যারের দায়িত্ব পালন করছেন চান্দিকা হাতুরুসিংহে।

আর চান্দিকা হাতুরুসিংহের দলকে স্বাধীনতা দেওয়াতেই বাংলাদেশ দল বদলে গেছে এমনটাই মনে করেন শ্রীলঙ্কান  থিলান সামারাবীরা। রবিবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ দলের অনুশীলনে তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে পুরো কোচিং স্টাফ। আর সেখানেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয় থিলান সামারাবীরা।

থিলান সামারাবীরা বলেন, ‘আমি মনে করি চান্দিকা হাতুরুসিংহের ও অন্যান্য কোচিং স্টাফ ক্রিকেটারদের যেই স্বাধীনতা দিয়েছে তার কারণে তারা বিশ্বাস করতে পেরেছে যে শীর্ষে থাকা দলগুলোর বিপক্ষে তারা  খুব ভালোভাবে লড়াই করতে পারবে।

শেষ ১৮ মাস তারা ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকার মত বড় বড় দলকে হারিয়েছে। এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলেছে এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতকে হারিয়ে অঘটনের জন্ম দেওয়ার কাছাকাছি ছিল বাংলাদেশ।’  থিলান সামারাবীরার মতে, চান্দিকা হাতুরুসিংহের তত্বাবধানেই বাংলাদেশের ক্রিকেট ও ক্রিকেটার বদলে গিয়েছে। থিলান সামারাবীরার আরও বলেন, ‘আমি মনে করি এটা বড় একটা পরিবর্তন বাংলাদেশের।

ক্রিকেটাররা যত স্বাধীনতা পাবে  তত তারা খেলার উন্নতি করতে পারবে।’ চান্দিকা হাতুরুসিংহের প্রশংসা করে  থিলান সামারাবীরা বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ার ছিল ২০০১  সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত। আমি শ্রীলঙ্কা দল থেকে বাদ পড়ার পর চান্দিকা হাতুরুসিংহে আমাকে বদলে দিয়েছিল।

আমার টেকনিক, মনঃসংযোগ সবকিছুতে চান্দিকা হাতুরুসিংহে আমূল পরিবর্তন এনেছিল। আর বাংলাদেশেও সেটা করছে। আমি জানি চান্দিকা হাতুরুসিংহে ক্রিকেটকে ভালোবেসে কিভাবে সব বদলে দিতে পারেন এবং তার সঙ্গে কাজ করা আমার খুব ভালো লাগবে।’

Related posts