Advertising
hemel
Advertising
hemel

টানা ২ ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় বাংলাদেশের

টানা ২ ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় বাংলাদেশের

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আরো একটি সিরিজ জয় করল বাংলাদেশ। বাংলাদেশ- জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ৩ ম্যাচ সিরিজে টানা ২ ম্যাচ জিতে ১ ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করল মাশরাফি বাহিনী।
টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশ মাত্র ২৪১ রান করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে। বাংলাদেশ দলের পক্ষে ইমরুল কায়েস করেন ৭৬ রান, নাসির হোসেন ৪১ ও সাব্বির রহমান করেন ৩৩ রান। বাংলাদেশের ব্যাটিং পর বাংলাদেশের বোলারদের অসাধারণ পারফরমান্সের কারনে মাত্র ২৪১ রান করেও ৫৮ রানের জয় পায় বাংলাদেশ। বাংলাদেশের পক্ষে মুস্তাফিজুর রহমান ৩ উইকেট, আলামিন ২ উইকেট, নাসির হোসেন ২ উইকেট, মাশরাফি উইকেট ও আরাফাত সানি পেয়েছেন ১ উইকেট।

টাইগারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে মাত্র ২৪২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পরে চিগাম্বুরার দল। বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি, আলামিন, নাসির হোসেন,আরাফাত সানি, ও মুস্তাফিজদের বোলিং তোপে ভেঙ্গে পড়ে জিম্বাবুইয়ান ব্যাটিং লাইন। ২০ ওভার খেলা শেষে মাত্র ৭৮ রানে প্রথম সারির মূল্যবান ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে জিম্বাবুয়ে, তখন ভালোই চাপে ছিল জিম্বাবুয়ে। কিন্তু পরের উইকেটে অধিনায়ক চিগাম্বুরা সিকান্দার রাজাকে নিয়ে ৭৩ রানের জুটি গড়েন এবং ৭৩ রানের জুটির কল্যাণে জিম্বাবুয়ের জয় খুব কাছে চলে এসেছিলো কিন্তু সে পথে বাধা দিলেন পেসার আল-আমিন হোসেন। পেসার আলামিন তার দুর্দান্ত বোলিংয়ে মাত্র এক ওভারের ব্যবধানে ২ জিম্বাবুয়ের উইকেট নিলে আবার চাপে পরে জিম্বাবুয়ে। তবে এ জুটি ভেঙ্গে যাওয়ার পর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানরা। শেষের দিকে মুস্তাফিজ ও নাসিরের বোলিং এর কাছে উইকেট বিলিয়ে দিয়ে গেছেন জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানরা। শেষ পর্যন্ত ১৮৩ সব উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে।
৭৬ রান করে ম্যাচ সেরা হয়েছেন ইমরুল কায়েস। সিরিজের শেষ একদিনের ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ঢাকায় ১১ নভেম্বর। পর পর দুই ম্যাচে ব্যাটিং ব্যর্থতার কারনে লিটন কুমার দাস শেষ ম্যাচ খেলবেন কিনা এই বিষয়ে সংশয় আছে। ৩ ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ ২-০ তে এগিয়ে আছে তবে অধিনায়ক মাশরাফি ৩-০ জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।



Related posts