Advertising
hemel
Advertising
hemel

পরিশেষে মোস্তাফিজের জন্য দুঃসংবাদ

পরিশেষে বিসিবি চিকিৎসক এবং ফিজিওদের শঙ্কাই সত্যি হলো। বাংলাদেশের তরুণ পেস সেনসেশন মোস্তাফিজুর রহমানের এমআরআই রিপোর্টে দুঃসংবাদই এলো। রিপোর্টে তার বাম কাঁধের স্ল্যাপে (সুপিরিয়র ল্যাব্রাম অ্যান্টেরিয়র অ্যান্ড পোস্টেরিয়র) সমস্যা ধরা পড়েছে। গতকাল বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় রিপোর্ট প্রসঙ্গে ইউনিভার্সিটি অব গ্রিনউইচের অর্থোপেডিক সার্জন টনি কোচারের সাথে দেখা করার কথা ছিল মোস্তাফিজুর রহমানের। কিন্তু সেখানে তার চিকিৎসক কী বলেছেন সেটি জানাতে পারেননি বাংলাদেশ দলের ফিজিও বায়েজিদুল ইসলাম খান।

তিনি জানান, ‘ওর সঙ্গে গতকাল সন্ধ্যায় কথা হলো। জানালো এমআরআই রিপোর্ট হাতে পেয়েছে। চিকিৎসকের কাছে যাচ্ছে। চিকিৎসকের সাথে কথা বলার পর মোস্তাফিজ যদি আবারো ফোন করে তাহলে জানতে পারবো। তাছাড়া সাসেক্সের ফিজিও ও চিকিৎসক আমাদের ইমেইলে ওর অবস্থাটা জানাবে। দেখি কখন সেটা জানতে পারি। কিন্তু বায়েজিদুল বলেন, এ ধরনের চোটের চূড়ান্ত সমাধান দুই ভাবে হতে পারে। একটা হলো ইনজেকশনের মাধ্যমে ওষুধ দিয়ে, আর অন্যটি অস্ত্রোপচার। মোস্তাফিজের ইংল্যান্ডের চিকিৎসক যে কোনো একটা হয়তো বেছে নেবেন। তাছাড়া পুনর্বাসন ও ব্যথানাশক ইনজেকশনের মাধ্যমে সাময়িক উপশম সম্ভব।

অপরদিকে ব্যথানাশক ইনজেকশন কিংবা ওষুধ দিয়ে মোস্তাফিজকে না খেলানোর নির্দেশনা বিসিবির পক্ষ থেকে বেশ জোরালোভাবে দেয়া রয়েছে ইংলিশ কাউন্টি দল সাসেক্সকে। মোস্তাফিজের কাউন্টি খেলতে যাওয়া নিয়ে হয়েছে  বিভিন্ন জটিলতা। প্রথমে আইপিএল  হতে  ফিরে ইনজুরি, তারপর ভিসা পেতে বিলম্ব। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কোনো কিছু বাধা হয়নি  মোস্তাফিজুর রহমানের কাউন্টি অভিষেকে। প্রথম খেলাতেই ২৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে সাসেক্সের জয় এনে দিয়ে হিরো হন বাংলাদেশের এই তরুণ পেসার। তবে কাটার মাস্টারের পরে ম্যাচটি ভালো হয়নি। তারপর আসে কাউন্টিতে ওয়ানডে অভিষেকের সুযোগ। তবে কাঁধের ইনজুরি সেটা আর হতে দেয়নি।

Related posts