Advertising
hemel
Advertising
hemel

আরব আমিরাতের হুমকি পাকিস্তানকে

পায়ের নিচে মাটি নেই এখন পাকিস্তান কোচ ওয়াকার ইউনুসের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ওয়াকারকে কোচের পদ থেকে সরিয়ে দিতে পারে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড পিসিবি। সেই স্থানে বসবে  আকিব জাভেদ। সংযুক্ত আরব আমিরাতের কোচ আকিব জাভেদ। আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আকিব জাবেদের দলটির বিপক্ষে ওয়াকারের পাকিস্তানের ম্যাচ আছে। কোন ভাবে যদি পাকিস্তানকে আজ ভোগাতে পারে তাহলে পাকিস্তানের কোচের আসনে বসে আকিব জাভেদ। আকিব জাভেদের  জন্য হলেও পাকিস্তানকে কী আজ ভোগাতে পারবে আরব আমিরাত?

এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টিতে দুর্দান্ত খেলছে আরব আমিরাত। আফগানিস্তানকে বাছাইপর্বে হারিয়ে হংকং ও ওমানকে উড়িয়ে দিয়ে চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে নিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। চূড়ান্ত পর্বে আরব আমিরাত কোন দলের কাছে পাত্তা পাবে না। শুরু থেকে প্রতিপক্ষকে ভোগাচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাত বোলিং দক্ষতা দেখিয়ে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ খেলা এই দলটি, লঙ্কানদের যেন হারিয়ে দিচ্ছিল! স্বাগতিক বাংলাদেশের বিপক্ষে যে ম্যাচটি খেলেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত, সেই ম্যাচেও একই ঝাঁজ দেখিয়েছে আমিরাতরা। সেটি আরব আমিরাতকে প্রশংসায় ভাসিয়েছে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যখন দুর্দান্ত বোলিং নৈপুণ্য প্রদর্শন করেছে আরব আমিরাতের মোহাম্মদ নাভিদ, আমজাদ জাভেদ, মোহাম্মদ শাহজাদরা, তখন মনে হয়েছে ‘ফ্লুক’ হতে পারে। আরব আমিরাত বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচে সেই ভুল ভেঙ্গে দিয়েছে। বাংলাদেশকেও বিপাকে ফেলেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। ৪ বছর আগে ২০১২ সালে মার্চ মাসে  সংযুক্ত আরব আমিরাতের কোচের দায়িত্ব নেয় পাকিস্তানের সাবেক পেসার আকিব জাভেদ। সেই থেকে ধীরে ধীরে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে আকিব জাভেদ। আকিব জাভেদের এশিয়া কাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলা এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ফলও। 

আকিব জাভেদ একজন পেসার ছিলো। সংযুক্ত আরব আমিরাতের পেস আক্রমণটাই বেশি শক্তিশালী।  বোলিং দিয়ে জয় সম্ভব হলেও শক্তিশালী দলের সামনে এসে ব্যাটিংয়ে ছন্নছাড়া হয়ে পড়ছে আরব আমিরাত।  আজ কী এর ব্যতিক্রম হবে প্রতিপক্ষ দল পাকিস্তানের। অনেক শক্তিশালী দল পাকিস্তান। পাকিস্তান যদিও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে দাঁড়াতে পারেনি। পাকিস্তান মাত্র ৮৩ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছে। আজও যদি আরব আমিরাতের বোলিংয়ের সামনে পাকিস্তানের ব্যাটিং মুখ থুবড়ে পড়ে, পাকিস্তানের বিপদও আসতে পারে। এই বিপদ পাকিস্তানের হারও হতে পারে। আর সেই হার হলে টানা ২ ম্যাচ পাকিস্তানের বিদায় ঘণ্টাও বেজে যেতে পারে আজ।

Related posts